মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলার পটভূমি

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ৫৯ ও ৬০ অনুচ্ছেদমতে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান সমূহের প্রতিষ্ঠা এবং তাদের কার্যাবলী পরিচালিত হয়। সংবিধানে স্পষ্টতঃই উলেস্নখ আছে যে, ‘আইনানুযায়ী নির্বাচিত ব্যক্তিদের সমন্বয়ে গঠিত প্রতিষ্ঠান সমূহের উপর প্রজাতন্ত্রের প্রত্যেক প্রশাসনিক একাংশের স্থানীয় শাসনের ভার প্রদান করা হইবে’ এবং এই প্রতিষ্ঠান সমূহ (ক) প্রশাসন ও সরকারী কর্মচারীদের কার্য, (খ) জনশৃঙ্খলা রক্ষা; এবং (গ) জন সাধারনের কার্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্কিত পরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাসত্মবায়ন করতে পারবে। এ আলোকেই বাংলাদেশে স্থানীয় সরকার ক্রমাগত বিকশিত হয়েছে এবং এরই ধারাবাহিকতায় উপজেলা পর্যায়ে উপজেলা পরিষদ গঠিত হয়েছে। বর্তমান সরকারের আমলে পরিচালিত নির্বাচন সমূহে উপজেলা পরিষদের জনপ্রতিনিধিগণ নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করছেন। স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান সমূহ স্থানীয়ভাবে বাসত্মবায়নযোগ্য উন্নয়ন প্রকল্প ও পরিকল্পনা সমূহে সরকার কর্তৃক সম্পদের পরিমানও বৃদ্ধি করা হয়েছে। দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন নিশ্চিত কল্পে বিভিন্ন ধরনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। উপজেলা পরিষদ আইন, ১৯৯৮ (২০০৯ ও ২০১১ সালে সংশোধিত) অনুযায়ী দেশের উপজেলা সমূহের জন্য একটি বার্ষিক এবং পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা প্রণয়ন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। পরিকল্পনা একটি নির্দিষ্ট সময় কালকে ভিত্তি করে প্রনীত হয় এবং দায়িত্ববন্টন ও বাসত্মবায়ন নিশ্চিত করার জন্য মূলত এর গুরম্নতব সবচেয়ে বেশী। পরিকল্পনা প্রনয়নে প্রতিটি উন্নয়ন পরিকল্পনা অগ্রাধীকার ভিত্তিতে সুনির্দিষ্ট করনের মাধ্যমে তা বাসত্মবায়নের ‘‘রোডম্যাপ’’ উলেস্নখ অত্যমত্ম জরম্নরী। পরিকল্পনা প্রনয়নের ক্ষেত্রে স্থানীয় সমস্যা কে চিহ্নিত করে তা সমাধান কল্পে কাঙ্খিত ফলাফল অর্জনে অধিক গুরম্নতব প্রদান এবং নিমণ পর্যায়-উচ্চ পর্যায় পদ্ধতি অবলম্বন করা হলে কাঙিখত ফলাফল অর্জন তথা প্রত্যাশিত উন্নয়ন ত্বরান্বিত হয়। স্থানীয় সম্পদের সুষ্ঠ ব্যবহার নিশ্চিত করে আদিতমারী উপজেলা পরিষদ ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছর হতে লক্ষ্যমাত্রার সাথে সামঞ্জস্য রেখে স্থানীয় পর্যায়ে চিহ্নিত সকল উন্নয়ন খাতের অগ্রগতি নিশ্চিত কল্পে বার্ষিক ও পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা প্রনয়নের জন্য উদ্যোগ গ্রহন করেছে।

স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান সমূহের মধ্যে উপজেলা পরিষদকে একটি শক্তিশালী, কার্যকর, গণতান্ত্রিক, স্বচ্ছ ও জবাবদিহিতামূলক স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে সহযোগিতা করতে স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক উপজেলা গর্ভন্যান্স প্রজেক্ট গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকল্পটির মেয়াদকাল ৫ (পাঁচ বৎসর) (আগষ্ট ২০১১- জুলাই ২০১৬)। বাংলাদেশে কার্যরত বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা যেমন- UNDP, UNCDF,  European Union (EU) Ges Switzerland Development Cooperation (SDC) এর আর্থিক সহযোগীতায় বাংলাদেশের ৭টি বিভাগের ৭ টি জেলার ১৪ টি উপজেলায় (প্রথম পর্যায়ে ৭ টি এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে ৭ টি) এ প্রকল্প বাসত্মবায়িত হবে। আদিতমারী উপজেলা দ্বিতীয় পর্যায়ের অমত্মর্ভূক্ত। প্রকল্পটির অন্যতম উদ্দেশ্য হচ্ছে জাতীসংঘ ঘোষিত সহস্রাব্দে উন্নয়ন লÿ্যমাত্রা অর্জনে স্থানীয় পর্যায়ে পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং বাসত্মবায়ন। স্থানীয় পর্যায়ে উন্নয়ন পরিকল্পনা তৈরীর সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপজেলা গভর্ন্যান্স প্রজেক্টের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় পরিকল্পনা একাডেমীর সহায়তায় আদিতমারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ অন্যান্য অফিসারদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়। পরবর্তিতে এ বিষয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয় এবং স্থানীয় জনগণের সক্রিয় অংশগ্রহন ও মতামতের ভিত্তিতে একটি পরিকল্পনা বই প্রকাশের  উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এই প্রকাশনাটিতে আদিতমারী উপজেলার প্রয়োজনীয় তথ্য, বিভাগভিত্তিক পরিকল্পনা ও বাজেট সম্পর্কিত তথ্য  সন্নিবেশিত হয়েছে। প্রকাশনাটির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে স্থানীয় সম্পদের সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ ব্যবহারের মাধ্যমে স্থানীয় সমস্যার সমাধান করে একটি কার্যকর ও শক্তিশালী গণতান্ত্রিক উপজেলা পরিষদ গঠন করা। বর্তমান সরকারের ঘোষিত রূপকল্প-২০২১ এবং সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যেসমূহ বাসত্মবায়নে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণসহ স্থানীয় জণগনের চাহিদার প্রতি দৃষ্টি রেখে আদিতমারী উপজেলার বার্ষিক পরিকল্পনা প্রণয়নের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।